সর্বশেষ সংবাদ
Home / সারাদেশ / আশুলিয়ায় নারী পাচারকারী চক্রের ৪ সদস্য গ্রেফতার

আশুলিয়ায় নারী পাচারকারী চক্রের ৪ সদস্য গ্রেফতার

আলমাস হোসেনঃ শিল্পাঞ্চল আশুলিয়া থেকে নারী পাচারকারী চক্রের চার সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার (৭ নভেম্বর) গভীর রাতে আশুলিয়ার নবীনগর এলাকা থেকে ভারতে পতিতাবৃত্তি করানোর লক্ষে এক নারীকে পাচারের সময় তাদেরকে গ্রেফতার করে আশুলিয়া থানার এসআই সাজ্জাদুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম। এসময় পাচারের জন্য নিয়ে আসা মরিয়ম (২০) নামের এক নারীকে উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- মানিকগঞ্জ জেলার সদর থানাধীন চর কৃষ্ণপুর গ্রামের মৃত নুর হাদীর ছেলে আলী হোসেন (৫০), একই জেলার দৌলতপুর থানার চরকাদারি গ্রামের মৃত মানিক মোল্লার ছেলে আহাম্মেদ আলী (৩৫), একই গ্রামের ইউসুফ মোল্লার ছেলে সুরুজ মোল্লা (২৮) এবং বাগুটিয়া গ্রামের মোঃ আসমত আলীর ছেলে মো. জব্বার শেখ (৩২)।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী মরিয়ম বলেন, সে একমাস আগে মাদারীপুর থেকে আশুলিয়ার গাজীরচট এলাকার একটি ভাড়া বাড়িতে থেকে ইউনিকের এসবি পোশাক কারখানায় হেলপার পদে চাকুরি শুরু করেন। কারখানায় চাকুরির সুবাদে তাসলিমা (২৬) নামের এক নারীর সাথে তার পরিচয় ও বান্ধুত্ব হয়। একপর্যায়ে তাসলিমা তাকে জানায়, তার বোনের বাড়ি ভারতে। সে অসুস্থ তাকে দেখতে যাবে সে। তার সাথে তাকেও যেতে আহ্বান জানায়। তাসলিমার অনুরোধে সে ভারতে যেতে সম্মত হয়ে কারখানা থেকে ৩দিনের ছুটি নেয়। মরিয়ম ও তাসলিমা মিলে রওয়ানা হয়ে নবীনগর বাস কাউন্টারে গিয়ে টিকেট কাটেন। এসময় আরো ৪ জনের সাথে তাসলিমা তাকে পরিচয় করে দেন এবং বাসে ওঠেন। এমন সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তাসলিমা সড়ে পড়েন।

এবিষয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে আশুলিয়া থানার (ওসি) জাবেদ মাসুদ বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ জানতে পারে ভারতে পতিতাবৃত্তি কাজে পাচারের উদ্দেশ্যে নবীনগরে একটি বাস কাউন্টারে কতিপয় পাচারকারি এক নারীকে নিয়ে যাচ্ছে। এসময় অভিযান চালিয়ে নারী পাচারকারী চক্রের চার সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পাচারের জন্য নিয়ে আসা ওই নারীকেও এসময় উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন এলাকা থেকে নারীদেরকে প্রলোভন দেখিয়ে ভারতে পাচার করে আসছিলো।

তাদের ব্যবহৃত মোবাইলফোন থেকে পাঁচ শতাধিক নারীর ছবি উদ্ধার করা হয়েছে। এসব ছবিকে তারা গ্রাফিক্স এর মাধ্যমে আকর্ষণীয় করে ভারতে পাঠিয়ে থাকে। সেখান থেকে সংকেত পাওয়ার পর দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে নারীদেরকে পাচার করে দেয় এই চক্রের সদস্যরা। এদের মধ্যে একজন আলী হোসেন। তার কাছে ভারতীয় নির্বাচন কমিশনের পরিচয়পত্র নম্বর এনআরসি-১০১৫৮৯০ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় নারী পাচারের অভিযোগে মামলা দায়ের করে এবং ৭দিনের রিমান্ড চেয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

চাঁদপুর জেলা ন্যাপের সভাপতির মৃত্যুতে সম্পাদক পরিষদের শোক প্রকাশ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ চাঁদপুর জেলা ন্যাপের সভাপতি, চাঁদপুর চেম্বার অব কমার্সের সাবেক ...