সর্বশেষ সংবাদ
Home / সারাদেশ / ফরিদগঞ্জ নির্বাচনী প্রচার শেষ, মোট ভোটার ৩ লাখ ৯ হাজার ৮৩৯ ॥ ভোট কেন্দ্র ১১৮টি
উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান প্রাথীদের ছবি

ফরিদগঞ্জ নির্বাচনী প্রচার শেষ, মোট ভোটার ৩ লাখ ৯ হাজার ৮৩৯ ॥ ভোট কেন্দ্র ১১৮টি

এমকে মানিক পাঠান:
ফরিদগঞ্জে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা শেষ । আগামীকাল রোববার অনুষ্ঠিত হবে ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। নির্বাচনে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান (সংরক্ষিত) পদে ১৬ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।

সংশিল্ট সুত্র জানায়, সুষ্ঠুভাবে ভোট গ্রহণের লক্ষ্যে প্রশাসন ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে। নির্বাচনে দায়িত্ব পালনে র‌্যাব, বিজিবি, পুলিশ ও আনসার সদস্য মাঠে থাকবে। ফরিদগঞ্জ উপজেলায় ১টি পৌরসভা ও ১৫টি ইউনিয়নে ৩ লাখ ৯ হাজার ৮ শ’ ৩৯ জন ভোটার রয়েছে । ভোট গ্রহণের জন্য ১১৮টি ভোট কেন্দ্রে ৭৪৫টি কক্ষ স্থাপন করা হয়েছে। পুরুষ ভোটার ১৫৭৮৫৫ জন এবং মহিলা ভোটার সংখ্যা ১৫১৯৮৪ জন। তবে বিভিন্ন প্রার্থীর ব্যাপক প্রচারনার কারনে ভোট কেন্দ্রে কাংক্ষিত ভোটার উপস্থিত হয়ে তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে কেন্দ্রে আসবে বলে আশা করা হচ্ছে।

এদিকে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি অ্যাড. জাহিদুল ইসলাম রোমান (নৌকা) ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা ছিল তুঙ্গে। নৌকার সমর্থনে আয়োজিত প্রতিটি জনসভা ও গণসংযোগে ব্যাপক নেতা-কর্মী সম্পৃক্ত ছিলেন। নৌকা প্রতীকের প্রচারে শীর্ষে থাকা দেখে স্থানীয়রা বলছে, নৌকার প্রতীকের প্রার্থী এডভোকেটু জাহিদুল ইসলাম রোমানের দলীয় প্রতীক নৌকার পাশপাশি সর্ব মহলে রোমানের ইর্ষনীয় জনপ্রিয়তার কারনেই তার জয় এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র । এছাড়া আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন না পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে উপজেলা ছাত্রলীগের এক সময়ের সাবেক সভাপতি মো. তোফায়েল আহম্মেদ ভূঁইয়া আনারস প্রতীক নিয়ে মাঠে থাকলেও নেই আনারস মার্কার ব্যাপক কর্মী বাহিনী। যে বা যারা তোফায়েলের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারে কর্মী হিসেবে মাঠে আছেন তারা সবাই একরকম গোপনে প্রচারনা চালাচ্ছেন। অপরদিকে এনপিপি মনোনীত প্রার্থী আব্দুল গণিকে (আম) গণসংযোগ করতে একেবারেই দেখা যায়নি।

অপরদিকে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওয়াহিদুর রহমান রানা (টিয়া পাখি), মো. পাবেল পাটওয়ারী (উড়োজাহাজ), ছাত্রলীগের সাবেক নেতা, সাংবাদিক এনামূল হক খোকন পাটওয়ারী (টিউবওয়েল), ছাত্রলীগের সাবেক নেতা জিএস তছলিম (বই), মো. আবু সুফিয়ান শাহীন (চশমা), কামরুজ্জামান সবুজ (তালা), জাকির হোসেন বাবু (মাইক) প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।

এছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান (সংরক্ষিত) প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক রীনা নাছরিন (হাঁস), মাজুদা বেগম (ক্যামেরা), ছাত্রলীগের সাবেক নেতা সেলিনা আক্তার শেলী (প্রজাপতি), উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান রেবেকা সুলতানা স্মৃতি(কলস), রেহানা বেগম (ফুটবল), হালিমা বেগম (পদ্মফুল) প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ঘুষ বানিজ্যের ভিডিও প্রকাশ:তদন্ত শুরু,বেপরোয়া এসআই মিজান ভুক্তভোগীদের নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা

মোঃ সাগর হোসেন,বেনাপোল(যশোর)প্রতিনিধি: বেনাপোল পোর্ট থানার এসআই মিজানের বিরুদ্ধে ঘুষ বানিজ্যের ইলেকট্রনিক ...