সর্বশেষ সংবাদ
Home / সারাদেশ / চাঁদপুরে ডাকাতিয়ার পাড় দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ

চাঁদপুরে ডাকাতিয়ার পাড় দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ

স্টাফ রিপোর্টার :
চাঁদপুরে ডাকাতিয়া নদীর পাড় দখল করে আবারো মার্কেট নির্মাণ করছে এক শ্রেণীর প্রভাবশালী দখলবাজ চক্র। নদীর পাড়ের জায়গা দখল হয়ে যাচ্ছে। চাঁদপুর পুরাণবাজার ১নং ঘাট ডাকাতিয়া নদীর পাড়ে বিআইডবিস্নউটিএ’র জায়গা দখল করে মার্কেট নির্মাণ করছে দখলবাজরা।

খবর পেয়ে শুক্রবার দুপুরে বিআইডবিস্নউটিএ’র টিআই মাহাতাব উদ্দিন ও নৌ পুলিশের এসআই গিয়াস উদ্দিন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে অবৈধ স্থাপনার কিছু অংশ ভেঙ্গে ফেলেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে চলে যাওয়ার পরেই দখলবাজ চক্র পুনরায় ইট, বালি ও সিমেন্ট এনে কাজ শুরু করে পাকা স্থাপনা নির্মাণ কাজ চালিয়ে যায়।

জানা যায়, পুরাণবাজারের কয়েকজন কালোবাজারী ঐক্যবদ্ধ হয়ে নদীর পাড়ে জায়গা দখল করে দোকান ও গোডাউন তৈরির কাজ শুরু করে। প্রতিদিন রাতে মেঘনা নদীতে এই কালোবাজারী চক্র বিভিন্ন জাহাজ থেকে অকটেন, পেট্রোল, ডিজেল, পামওয়েল, চিনিসহ বিভিন্ন মালামাল পাচার করে অবৈধভাবে বিক্রি করে থাকে।

তারা রাতে এসব মালামাল নৌকা দিয়ে এনে নদীর পাড়ে নিরাপদ স্থানে রাখার জন্যই সরকারি জায়গায় অবৈধভাবে গোডাউন নির্মাণ করছে।স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, পুরাণবাজারের চোরাকারবারী গাল কাটা আলী, মোহাম্মদ আলী খান ও পাঁচপাই কামাল সরকারি জায়গায় অবৈধভাবে সামনে দোকান ও পিছনে গোডাউন নির্মাণ কাজ করছে। তাদের সাথে প্রতিযোগিতা দিয়ে পুরাণবাজারের কালোবাজারী ও কোস্টগার্ডের কথিত সোর্স সাদ্দাম আরেকটি গোডাউন নির্মাণ করছে।

এতে করে ডাকাতিয়া নদী দিন দিন দখল হয়ে ছোট হয়ে যাচ্ছে।এসব অবৈধ দখলদার সরকার দলীয় নেতাদের নাম ভাঙ্গিয়ে এভাবে দিনের পর দিন সরকারি সম্পত্তি দখল করে স্থাপনা নির্মাণ করছে। কিছুদিন পরেই আবার সেই স্থাপনা অন্য ব্যক্তির কাছে লাখ লাখ টাকার বিনিময়ে বিক্রি করে দিচ্ছে তারা।পুরাণবাজারে ডাকাতিয়া নদীর পাড় এভাবে দখলবাজ চক্র দখল করে নেয়ায় জনমনে নানা প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

নদীর পাড়ের এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের মাধ্যমে দখলমুক্ত করে দখলবাজ চক্রের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন বলে মনে করেন সচেতন মহল।এ ব্যাপারে নদীপাড়ের জায়গার দায়িত্বে থাকা চাঁদপুর নৌ-বন্দর কর্মকর্তা আবদুর রাজ্জাকের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, জেলা প্রশাসনের সাথে বিআইডবিস্নউটিএ’র নদী পাড়ের জায়গা নিয়ে জরিপ করা হচ্ছে। সীমানা নির্ধারণের পরেই সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

পুঠিয়ার জিউপাড়া ইউপিতে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা জমে উঠেছে

আরিফুল রুবেল,স্টাফ রিপোর্টার: তফশিল ঘোষণার পর রাজশাহীর পুঠিয়ার জিউপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনী ...