সর্বশেষ সংবাদ
Home / অপরাধ / আশুলিয়ায় একই পরিবারের তিন নারীকে পর্যায়ক্রমে ধর্ষণ, ভণ্ড পীর গ্রেফতার

আশুলিয়ায় একই পরিবারের তিন নারীকে পর্যায়ক্রমে ধর্ষণ, ভণ্ড পীর গ্রেফতার

আলমাস হোসেনঃ  ঢাকার আশুলিয়ায় একই পরিবারের মা, মেয়েসহ ৩ নারীকে পর্যায়ক্রমে ধর্ষণের অভিযোগে মনির হোসেন নামের এক ভন্ড পীরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রবিবার (৫ মে) রাতে আশুলিয়ার কুরগাঁও এলাকায় নিজ বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে আশুলিয়া থানা পুলিশ। পরে ওই ভন্ড পীরকে রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়। এদিকে নির্যাতনের শিকার নারীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত ভন্ড পীর মনির হোসেন আশুলিয়ার জাতীয় স্মৃতিসৌধ সংলগ্ন কুরগাঁও এলাকার মৃত আব্দুর রহিমের ছেলে। এ ঘটনায় ভন্ড পীরের মকবুল নামে এক সহযোগি পালাতক রয়েছে।

পুলিশ ও মামলা সুত্রে জানা যায়, প্রায় ১০ বছর আগে প্রবাসীর স্ত্রী মুরীদ হন একই এলাকার ভন্ড পীর মনির হোসেনের দরবারে। ফলে ভন্ড পীরের দরবারে নিয়মিত যাতায়াত ছিলো ওই নারীর। এই সুযোগে ধর্মের নানা অপব্যাখ্যা দিয়ে ওই নারীকে প্রতিনিয়ত ধর্ষণ করে আসছিলো ভন্ড পীর মনির। তার কিছুদিন পর ভন্ড পীরের নজর পরে ওই নারীর ছোট বোনের উপর। বড় বোনকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে একই কায়দায় ছোট বোনকে মুরীদ করে নেয় সে। এরপর সে তাকেও নিয়মিত ধর্ষন করে আসছিলো। এখানেই শেষ নয় সর্বশেষ বড় বোনের ১৩ বছরের কিশোরী মেয়েও রেহাই পায়নি ভন্ড পীরের কবল থেকে। তার মাকে নানা কৌশল করে বুঝিয়ে মেয়েকেও একই কায়দায় ধর্ষণ করতে শুরু করে। আর এসকল ভয়ংকর অপকর্মগুলো দীর্ঘদিন ধরে ভন্ড পীরের আস্তানা আশুলিয়ার কুরগাঁও এলাকার নিজস্ব ৫ তলা বাড়ির পঞ্চম তলাতেই করে আসছিলো ভন্ড পীর মনির হোসেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ রিজাউল হক দীপু জানান, দীর্ঘদিন ধরে ধর্মের অপব্যাখ্যা দিয়ে পরিবারের বড় বোনকে নানা কৌশলে মুরীদ করে ধর্ষণ করে আসছিলো ভন্ড পীর মনির হোসেন। পরে তার ছোট বোনকেও একই কৌশলে সে ধর্ষণ করে। এরপর ভন্ড পীর একই কায়দায় বড় বোনের কিশোরী মেয়েকেও প্রতিনিয়িত ধর্ষণ করে আসছিলো। রবিবার ভন্ড পীরের আস্তানা থেকে কৌশলে বের হয়ে ছোট বোন আশুলিয়া থানায় অভিযোগ জানালে অভিযান চালিয়ে ভন্ড পীরকে গ্রেফতার করা হয়। পরে সোমবার সকালে তাকে রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

ওই ভন্ড পীর তার নিজ বাড়ীতে আস্তনা তৈরি করে নানা কৌশলে আরও একাধিক নারীকে ধর্ষণের তথ্য রয়েছে বলেও জানায় পুলিশ।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের অভিযানে সাড়ে ১৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার

মোঃসাগর হোসেন,বেনাপোল(যশোর)প্রতিনিধি: যশোরের বেনাপোল পোর্ট থানাধীন সরবানহুদা গ্রাম থেকে সাড়ে ১৫ কেজি ...