সর্বশেষ সংবাদ
Home / সারাদেশ / দুর্গাপূজাকে সামনে রেখে ব্যস্ত মতলব উত্তরের মৃৎশিল্পীরা ওসি মিজানুর রহমানের ছেংগারচর বাজার পূজামন্ডপ পরিদর্শন

দুর্গাপূজাকে সামনে রেখে ব্যস্ত মতলব উত্তরের মৃৎশিল্পীরা ওসি মিজানুর রহমানের ছেংগারচর বাজার পূজামন্ডপ পরিদর্শন

খান মোহাম্মদ কামালাঃ
সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গা পূজাকে সামনে রেখে ব্যস্ত সময় পার করছেন চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার মৃৎশিল্পীরা। মন্ডপগুলোতে মৃৎশিল্পীরা প্রতিমা নির্মাণে যেমন ব্যস্ত সময় পার করছেন, পাশাপাশি মন্ডপগুলোর আয়োজকদের কাজকর্মও বেড়ে গেছে। শুরু করেছেন মন্ডপ নির্মাণসহ নানা সাজ-সজ্জার প্রস্তুতি।

এদিকে হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজায় নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্যে পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী, বিপিএম (বার)। তারই পরিপেক্ষিতে বৃহস্পতিবার রাতে মতলব উত্তর থানার ওসি মিজানুর রহমান ও ওসি তদন্ত মোর্শেদুল আলম ভুইয়া উপজেলার ছেংগারচর পৌরসসভা শ্রী শ্রী কালাচাঁদ বিগ্রহ মন্দির র্পজামন্ডপসহ কয়েকটি পূজামন্ডপ পরিদর্শন করেন। এসময় ছেংগারচর পৌর বনিক সমায় সমিতির সাবেক সভাপতি মোবারক হোসেন মুফতি, সাংবাদিক কামাল হোসেন খান,ছেংগারচর বাজার শ্রী শ্রী কালাচাঁদ বিগ্রহ মন্দিরের পূজা উদ্যাপন পরিষদ সভাপতি শ্যামল কুমার বাড়ৈ ও সাধারণ সম্পাদক বিমল চন্দ্র দাস প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

দুর্গাপূজার প্রস্তুতির বিষয়ে ছেংগারচর বাজার শ্রী শ্রী কালাচাঁদ বিগ্রহ মন্দিরের পূজা উদ্যাপন পরিষদ সভাপতি শ্যামল কুমার বাড়ৈ ও সাধারণ সম্পাদক বিমল চন্দ্র দাস জানান, গত বছর লোহাগড়া পৌরসভার ২৯টি মন্ডপে দুর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এ বছরও একই সংখ্যক মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হবে।

ছেংগারচর বাজার শ্রী শ্রী কালাচাঁদ বিগ্রহ মন্দিরের প্রধান পুরোহিত নারায়ন চক্রবর্তি জানান, ২৮ সেপ্টেম্বর মহালয়ার অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ধরাধামে দেবী দুর্গার আগমনী বার্তা বেজে উঠবে। আগামী ৪ অক্টোবর ষষ্ঠী পূজার মাধ্যমে দুর্গোৎসব শুরু হয়ে ৮ অক্টোবর বিসর্জনের মাধ্যমে ৫ দিনব্যাপী এ উৎসব শেষ হবে।

উপজেলার ছেংগারচর পৌরসভা, সাদুল্যাপুর,বাগানবাড়ি, দূর্গাপুর, সূলতানাবাদ, ইসলামাবাদ, গজরা ইউনিয়নসহ বিভিন্ন এলাকার মন্ডপ ঘুরে দেখা যায়, মৃৎশিল্পীরা দুর্গা প্রতিমা নির্মাণ করছেন। অধিকাংশ মন্ডপে প্রতিমার মাটির কাজ শেষ করেছেন শিল্পীরা। পূজা শুরুর ১ সপ্তাহ আগে মূর্তির ওপর রংতুলির আঁচড় দিবেন তারা।

ছেংগারচর বাজার শ্রী শ্রী কালাচাঁদ বিগ্রহ মন্দিরের মৃৎশিল্পী সঞ্চয় পাল জানান, ব্যস্ততার কারণে এ বছর বেশি প্রতিমা নির্মাণ করছেন না। মাত্র ছয়টি মন্ডবের প্রতিমা নির্মাণে তিনি কাজ করছেন।

মতলব উত্তর থানার ওসি মিজানুর রহমান বলেন, দুর্গাপূজায় নিñিন্দ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। প্রতিমা তৈরির সময় স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ, পূজা মন্ডপে সিসি ক্যামেরা ও অগ্নিনির্বাপন যন্ত্র স্থাপন এবং হ্যান্ড মেটাল ডিটেক্টর ব্যবহারের জন্য পূজা উদ্যাপন কমিটির নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের ধর্মীয় অনুভূতির প্রতি সম্মান প্রদর্শনের মাধ্যমে ধর্মীয় সম্প্রীতি বজায় রাখতে হবে।

তিনি আরও বলেন সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় অতীতের মত এবারও দেশব্যাপী শান্তিপূর্ণভাবে দুর্গাপূজা উদ্যাপিত হবে।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

স্বপ্নছায়া সামাজিক সংগঠন নামে নতুন সংগঠনের আত্মপ্রকাশ আহ্বায়ক ইকবাল বেপারী, যুগ্ম আহ্বায়ক সোহেল রানা ও রবিন পাটওয়ারী

স্টাফ রিপোর্টার  : স্বপ্নছায়া সামাজিক সংগঠন নামে নতুন সংগঠনের আত্মপ্রকাশ করেছে। সন্ধ্যায় ...