সর্বশেষ সংবাদ
Home / অপরাধ / নবাগত পুলিশ সুপারের প্রতি লঞ্চ যাত্রীদের সু-দৃষ্টি প্রত্যাশা চাঁদপুরের লঞ্চগুলোতে আবারও তরুণ-তরুণীদের বেহায়াপনা

নবাগত পুলিশ সুপারের প্রতি লঞ্চ যাত্রীদের সু-দৃষ্টি প্রত্যাশা চাঁদপুরের লঞ্চগুলোতে আবারও তরুণ-তরুণীদের বেহায়াপনা

মানিক দাস ॥ চাঁদপুর ঢাকা নৌ পথে চলাচলকারী লঞ্চগুলোতে আবারও তরুণ-তরুণীদের বেহায়াপনা চলছে। কিছুদিন বন্ধ থাকার পর গত কয়েক মাস ধরে এদের অবাধ বিচরণ লঞ্চগুলোতে পরিলক্ষিত হচ্ছে। এদের কারণে পরিবার পরিজন নিয়ে সাধারণ মানুষ লঞ্চে যাতায়াত করতে মারাত্মকভাবে ইতস্তত বোধ করছে। তাছাড়া প্রতিনিয়তই রসিক পুলিশরা লঞ্চ থেকে তরুণ-তরুণীদের আটক করে থানায় নিচ্ছে।

গত সোমবার ১৬ সেপ্টেম্বর ঢাকা থেকে চাঁদপুর অভিমুখে আসা এমভি আব-এ-জমজম লঞ্চ থেকে তেমনি হিন্দু মুসলিম প্রেমিক প্রেমিকাকে পুলিশ আটক করেছে। এদেরকে চাঁদপুর মডেল থানায় সৌপর্দ করা হয়েছে। জানা যায়, শরীয়তপুর জেলার বাঘড়া বাজার এলাকার আমিনুল হকের মেয়ে সাদিয়া ইসলাম (১৭) ও ঢাকা গেন্ডারিয়ার খেজুরবাগ এলাকার সুভাষ শিকদারের ছেলে আকাশ শিকদার (২১) কে পুলিশ আটক করে।

পুলিশ জানায়, সাদিয়া ও আকাশ আব-এ-জমজম লঞ্চ থেকে নেমে লঞ্চ টার্মিনাল এলাকায় ঘুরাঘুরি করলে তাদের সন্দেহ হয়। তখন তাদেরকে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা প্রথমে স্বামী-স্ত্রীর পরিচয় দেয়। হিন্দু এবং মুসলিম হওয়ায় পুলিশের কাছে বিষয়টি রহস্যজনক মনে হলে পুলিশ তাদেরকে চ্যালেঞ্জ করে। তখন সাদিয়া ও আকাশ জানায় তারা দু’জন দু’জনকে ভালোবাসে। তারা আব-এ-জমজ লঞ্চের একটি সিঙ্গেল কেবিন ভাড়া করে চাঁদপুরে এসেছে। এদের শরীর তল্লাশী করে পুলিশ অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকার কিছু সামগ্রী উদ্ধার করে।

এর কয়েকদিন পূর্বে একই লঞ্চে প্রেমিক প্রেমিকা আপত্তিকর অবস্থায় ছিল। তখন প্রেমিক তার প্রেমিকাকে লঞ্চের কেবিনে বেদম মারধর করে। প্রেমিকার চিৎকারে লঞ্চের যাত্রীরা ছুটে আসলে প্রেমিক বিবস্ত্র অবস্থায় মুন্সিগঞ্জে নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়ে পালানোর চেষ্টা করে। পরে তাকেও লঞ্চ কর্তৃপক্ষ নদী থেকে উদ্ধার করে চাঁদপুরে এনে পুলিশের কাছে সৌপর্দ করে। এমনিভাবে প্রতিনিয়তই ঢাকা চাঁদপুর নৌ পথে চলাচলকারী লঞ্চগুলোতে লঞ্চের কতিপয় কিছু অসাধু স্টাফ কেবিন ভাড়া দিয়ে তরুণ-তরুণীদেরকে অন্যায় অপরাধ কর্মকা- করার সুযোগ করে দিচ্ছে।

ঢাকা থেকে প্রতিদিন সকালে যে সমস্ত লঞ্চ চাঁদপুরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে এসব লঞ্চ যোগে ভদ্র বেশী তরুণ-তরুণীরা কেবিন ভাড়া করে চাঁদপুর ঘাটে আসে। ওই লঞ্চ থেকে নেমে তারা চাঁদপুর থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া অপর লঞ্চের কেবিন ভাড়া করে ঢাকার উদ্দেশ্যে পুনরায় ফিরে যাচ্ছে। লঞ্চের সাধারণ যাত্রীরা এসব অন্যায় অপরাধ মুক্ত লঞ্চগুলোকে রাখার জন্য চাঁদপুরের নবাগত পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান পিপিএম (বারের) সুদৃষ্টি কামনা করছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে আটক সাদিয়া ও আকাশ সিকদারের পরিবারের জিম্মায় তাদের দু’জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

x

Check Also

বীরগঞ্জে অসহায় মহিলাকে চাকুরী দেয়ার প্রলোভনে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাৎতের অভিযোগ

রনজিৎ সরকার রাজ  ,  বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ   দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার পলাশবাড়ী ইউনিয়নের ...