সর্বশেষ সংবাদ
Home / সারাদেশ / ফরিদগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের সম্পত্তি দখলের পায়তারা

ফরিদগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের সম্পত্তি দখলের পায়তারা

মানিক দাস ॥ চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ্ উপজেলার গাজীপুর উপাদী গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সম্পত্তি দখলের পায়তারা করছে ভূমি দস্যুরা। ভূমিদস্যুদের হাত থেকে রক্ষা পেতে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা ৯ ডিসেম্বর সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে। মুক্তিযোদ্ধা মৃত চান মিয়ার স্ত্রী আছমতির নেছা (৭৫) বাদী হয়ে মামলা করেও ভূমিদস্যুদের হাত থেকে সম্পত্তি রক্ষা করতে পারছে না। জানা যায়, আছমতির নেছাকে ফরিদগঞ্জ উপজেলার উপাদী মৌজার সি.এস ২৫নং খতিয়ানে ১ হাজার ১শ ৭৪ শতাংশ ভূমি মুন্সি কাজী মালিক দখলদার থাকা অবস্থায় ৪ পুত্র আমজাদ আলী, সৈয়দ আলী, ওমর আলী, হায়দার আলীর ওয়ারিশ সূত্রে প্রত্যেক পুত্র ২৯৩.৫ একর সম্পত্তির ভূমিতে মালিক দখলকার হয়।

পিতার জীবনমানে আব্দুল হালিম মৃত্যুবরণ করলে আমার দাদা পিতার অংশ আমার প্রতি সদয় হইয়া হেবা নামায় ২৭২৯নং ১৯৪৫ সালের ৬ অক্টোবর দলিল মূলে দান করেন। বর্তমানে বিবাদী লোকমান গাজী, নুরু গাজী, দুলাল গাজী ও তাফাজ্জল গাজী সম্পত্তির প্রতি লোভ হইয়া সম্পত্তি গ্রাস করার চেষ্টা করছে। ৩৮/১৯ মোকদ্দমা বিজ্ঞ ফরিদগঞ্জ সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে দায়ের করলে বিবাদীগণ কাল্পনিক ঘটনা সাজাইয়া ভুয়া জাল দলিল সৃজন করে জবাব দাখিল করে। বিবাদীগণ বর্তমানে জোরপূর্বক হয়রানি করার জন্য উল্টো ৮৪/১৯ মোকদ্দমা দায়ের করে। বিবাদীগণ সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে প্রতিনিয়তই এই মুক্তিযোদ্ধার পরিবারকে হুমকি ধমকি প্রদান করছে বলে বিবাদী জানান।

এই অসহায় মুক্তিযোদ্ধার পরিবারটি নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে দিন যাপন করছে। আছমতির নেছার ছেলে মোঃ আলী হোসেন ১০ম সংসদ নিবাচনের চিফ হুইফ আসম ফিরোজ এমপির পারিবারিক গাড়ী চালক। এই বিষয়টির চীফ হুইফকে জানানো হলেও প্রশাসনিকভাবে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারটি কোন সহায়তা পাচ্ছে না। উপাদী ৭নং ইউনিয়ন চেয়ারম্যান কার্যালয়ে বহুবার শালিশ হলে সেখানে বিবাদীগণ তাদের দলিল দেখাতে পারেনি। থানায় শালিশ হলেও সেখানেও বিবাদীগণ সম্পত্তির দলিল দেখাতে পারেনি। গত ৮ আগস্ট রাত ১০টায় মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী আছমতির নেছার বসতঘরে বিবাদীগণ সন্ত্রাসী নিয়ে হামলা চালায়। কিন্তু ওইদিন রাতে আছমতির নেছা বাড়ীতে না থাকায় প্রাণে বেঁচেযায়। গতকাল ৯ ডিসেম্বর সকাল ১০টায় আছমতির নেছার ছেলে আলী হোসেন ও ছেলের শাশুড়ী হাসু বেগম চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে সুবিচার প্রার্থনা করে দীর্ঘ সময় অবস্থান করে।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

x

Check Also

সাংসদ রুহুল’কে সুলতানাবাদ ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের ফুলেল শুভেচ্ছা

মতলব উত্তর: চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার সুলতানাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আলমগীর ...