সর্বশেষ সংবাদ
Home / সারাদেশ / দূর্গাপুরে নেতাদের ছবিতে সাজানো বিয়ে বাড়ি

দূর্গাপুরে নেতাদের ছবিতে সাজানো বিয়ে বাড়ি

আরিফুল রুবেল,নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার ঝালুকা ইউনিয়নের চৌপুকুরিয়া গ্রামেরর একটি বিয়ে বাড়ির সাজসজ্জাতে প্রায় সবারই চোখ আটকে যাচ্ছিল। বিয়ে বাড়িতে সাজসজ্জা হবে, চোখ ধাধাঁনো আলোর ছড়াছড়ি ও আতসবাজি প্রদর্শনীও চলে, সবারই জানা কথা। কিন্তু এই বিয়ে বাড়ির সাজসজ্জা বেশ ব্যক্তিক্রম।
বিয়ে বাড়িতে প্রবেশদ্বার বা গেইট করা হয়েছে তিনটি। এগুলোর মধ্যে খাবার স্থলের প্রবেশদ্বারটি সাজানো হয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানে ছবি দিয়ে। আরেকটি সাজানো হয়েছে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি দ্বারা। আর অন্যটিতে রয়েছে বাড়ির কর্তা ঝালুকা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোজাহার আলী মন্ডলসহ বঙ্গবন্ধু ও অন্যান্য নেতাকর্মীর ছবি।
মোজাহার চেয়ারম্যানের মেজো ছেলে তাজমহল মন্ডল ও ছোট ছেলে সান্টু মন্ডলের বিয়েতে এভাবেই নেতাদের ছবি দিয়ে সাজানো হয়েছে প্রবেশ দ্বারগুলো। শুধু প্রবেশদ্বার নয় পুরো বাড়ির বিভিন্ন দেয়াল সাজাতে ব্যবহার করা হয়েছে আওয়ামী লীগ নেতাদের ছবি। বুধবার দুই ছেলের বৌভাত ছিল।
তার বাড়ির দেয়ালে রয়েছে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সদস্য, মহানগর সভাপতি ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, পুঠিয়া-দুর্গাপুরের সাবেক সাংসদ প্রয়াত তাজুল ইসলাম মোহাম্মদ ফারুক, জেলা আওয়ামী লীগের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, পুঠিয়া-দুর্গাপুরের বর্তমান সাংসদ প্রফেসর ডাঃ মনসুর রহমান, জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি ওবায়দুর রহমানসহ জাতীয়, জেলা ও স্থানীয় পর্যায়ের আওয়ামী লীগের অসংখ্য নেতাকর্মীর ছবি।
চেয়ারম্যান মোজাহার আলী মন্ডল বলেন, আমার পছন্দের মানুষের ছবি লাগিয়েছি। এটা ব্যাক্তিগত পছন্দের ব্যাপার, অন্য কিছু না। তিনি বলেন, তার নিমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হয়েছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, বর্তমান সাংসদ প্রফেসর ডাঃ মনসুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ সরদার, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আহসানুল হক মাসুদ, জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি ওবায়দুর রহমানসহ জেলা-উপজেলা ও স্থানীয় পর্যায়ের অসংখ্য নেতাকর্মী।
জানা গেছে, বিয়ে বাড়িতে প্রায় ১০ হাজার মানুষকে নিমন্ত্রণ করা হয়। তাদের আপ্যায়নে ৬টি গরু, ৮টি খাসি ও মুরগীর মাংসের ব্যবস্থা রাখা হয়েছিল।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের

মতলব উত্তরে ভূয়া মাতৃত্বকালীন ভাতা উত্তোলন করছেন ইউপি সদস্য হোসনেয়ারা মতলব উত্তর ...