সর্বশেষ সংবাদ
Home / তথ্য ও প্রযুক্তি / জেলা প্রশাসন ও সনাক-চাঁদপুরের উদ্যোগে ২ দিনব্যাপী তথ্য মেলা উদ্বোধন

জেলা প্রশাসন ও সনাক-চাঁদপুরের উদ্যোগে ২ দিনব্যাপী তথ্য মেলা উদ্বোধন

যত বেশি তথ্যের উন্মুক্ততা থাকবে দুর্নীতি ততো বেশি কম হবে—–ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান

স্টাফ রিপোর্টার :
তথ্য অধিকার আইন, ২০০৯ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে জেলা প্রশাসন ও সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক), চাঁদপুরের আয়োজনে ২ দিনব্যাপী তথ্য মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে। ২৭ জানুয়ারি সোমবার দুপুর আড়াইটায় বর্ণাঢ্য র‌্যালির মাধ্যমে মেলার কার্যক্রম শুরু করা হয়। বিকেল ৩টায় আলোচনা সভা, সাড়ে ৪টায় জননী সংলাপ : প্রসঙ্গ দুর্নীতি প্রতিরোধ ও তথ্য অধিকার আইন, সন্ধ্যা ৬টায় সরকারি পরিষেবা : সমস্যা ও প্রতিকার ভাবনা শীর্ষক জনঅংশগ্রহণমূলক উন্মুক্ত প্রশ্নোত্তর পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশগ্রহণ করেন রজত শুভ্র সরকার, উপ-পরিচালক, সমাজসেবা অধিদপ্তর, মোঃ ইমরান হোসাইন সজিব, সহকারী কমিশনার (ভূমি), সদর, চাঁদপুর ও মোঃ হারুনুর রশিদ, ইন্সপেক্টর (তদন্ত), সদর মডেল থানা। এছাড়াও দুর্নীতিবিরোধী গণস্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়।

সনাক-চাঁদপুরের সভাপতি অধ্যক্ষ মোঃ মোশারেফ হোসেনের সভাপ্রধানে উদ্বোধনী পর্বের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুরের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান। সনাক সদস্য ইসমত আরা সাফি বন্যার সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মোঃ নূরুল হক, জেলা তথ্য অফিসার এবং ইকরাম চৌধুরী, সভাপতি, চাঁদপুর প্রেসক্লাব, ডাঃ হাবিব উল করিম, তত্ত্বাবধায়ক, ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল, চাঁদপুর। তথ্য অধিকার আইন বাস্তবায়নে নাগরিক সমাজের করণীয় বিষয়ে বক্তব্য রাখেন সনাকের সাবেক সভাপতি কাজী শাহাদাত। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডাঃ পীযূষ কান্তি বড়ুয়া, আহ্বায়ক, তথ্য মেলা বিষয়ক উপ-কমিটি। নারী অধিকার প্রতিষ্ঠায় তথ্য অধিকারের তাৎপর্য বিষয়ে আলোচনা করেন সনাক সদস্য সবিতা বিশ্বাস। তথ্য মেলার প্রাসঙ্গিকতা ও মেলা থেকে সনাক-টিআইবির প্রত্যাশা বিষয়ে বক্তব্য রাখেন মোঃ হুমায়ুন কবির, প্রোগ্রাম ম্যানেজার-সিই (কুমিল্লা ক্লাস্টার), টিআইবি। তথ্য অধিকার আইন বাস্তবায়নে ইয়েস গ্রুপের প্রত্যাশা বিষয়ে বক্তব্য রাখেন ইয়েস সদস্য রত্না আক্তার।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহমুদ জামান বলেন, তথ্য অধিকার আইন জনগণের একটা সনদ। তিনি আরো বলেন, প্রচার প্রচারণার মাধ্যমে তরুণ সমাজ তথ্য অধিকার আইন সম্পর্কে জানতে পারবে। যত বেশি তথ্যের উন্মুক্ততা থাকবে দুর্নীতি ততো বেশি কম হবে। যেখানে তথ্যের গোপনীয়তা থাকে সেখানেই দুর্নীতি বাড়ে। তিনি বলেন, প্রত্যেকটি সরকারি দপ্তর তথ্য প্রদানে আরো আন্তরিক হবে বলে প্রত্যাশা করি। জনগণের সচেতনতা ও অংশগ্রহণের ফলে তথ্য অধিকার আইন আরও বাস্তবায়ন হবে। তিনি বলেন, সুশীল সমাজ থেকে শুরু করে সাধারণ জনগণের চাহিদার প্রেক্ষিতে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার ২০০৯ সালে তথ্য অধিকার আইন পাস করে। তথ্য অধিকার আইন অনুযায়ী প্রত্যেকটি সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে একজন করে তথ্য কর্মকর্তা থাকবে এবং জনবহুল স্থানে তথ্য কর্মকর্তার নাম ও আপীল কর্মকর্তার নাম টানিয়ে দেবে। তিনি আরও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলেন। তিনি দুর্নীতির বিরুদ্ধে সাধারণ জনগণকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। এছাড়াও তিনি তথ্য অধিকার আইন বাস্তবায়নে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রত্যেকটি প্রতিষ্ঠানকে ধন্যবাদ জানান।

বিকেল সাড়ে ৪টায় অনুষ্ঠিত ‘জননী সংলাপ : প্রসঙ্গ দুর্নীতি প্রতিরোধ ও তথ্য অধিকার আইন’ বিষয়ে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন আবিদা সুলতানা, ভাইস-চেয়ারম্যান, সদর উপজেলা পরিষদ, গীতা মজুমদার, উপ মহা-মহাব্যবস্থাপক, অগ্রণী ব্যাংক লিঃ, কল্পনা সরকার, প্রাক্তন শিক্ষিকা ও নারী নেত্রী, পাপড়ী বর্মন, সাধারণ সম্পাদক, ওয়াইডাবিস্নউসিএ, মুক্তা পীযূষ, সভাপতি, পদক্ষেপ বাংলাদেশ, লীলা মজুমদার, সভাপতি, মহিলা পরিষদ, মাহমুদা খানম, অধ্যক্ষ, রেলওয়ে শিশু বিদ্যালয়, সবিতা বিশ্বাস, সদস্য, সনাক-চাঁদপুর এবং চাঁদপুর মহিলা পরিষদের সদস্য কাজল চক্রবর্তী। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সনাক সদস্য ইসমত আরা সাফি বন্যা।

মেলায় যে সকল সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান তথ্যসেবা প্রদান করে সেগুলো হলো : তথ্য প্রদান ইউনিট, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, জেলা পুলিশ বিভাগ, জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ, চাঁদপুর পৌরসভা, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর, কর কমিশনারের কার্যালয়, কর বিভাগ, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, সমাজসেবা অধিদপ্তর, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর, জেলা তথ্য অফিস, জেলা সমবায় কর্মকর্তা, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস, জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, শিশু একাডেমি, আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস, জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি কার্যালয়, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, বিআরটিএ, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, উপজেলা ভূমি অফিস, জেলা নির্বাচন অফিস, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়, সূর্যের হাসি ক্লিনিক, মাজহারুল হক বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল, চাঁদপুর ডায়াবেটিক হাসপাতাল ও মৈশাদী ইউনিয়ন।

উল্লেখ্য, আজ ২৮ জানুয়ারি তথ্য মেলার দ্বিতীয় দিনে বেলা ২টায় দুর্নীতিবিরোধী কুইজ প্রতিযোগিতা, দুপুর আড়াইটায় কিশোরী স্বাস্থ্য বিষয়ক আলোচনা, বিকাল সাড়ে ৪টায় দুর্নীতিবিরোধী কার্টুন প্রতিযোগিতা, সন্ধ্যা ৬টায় ‘দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মাণে আমার দপ্তরই তথ্য আইন সঠিকভাবে ও স্বচ্ছতার সাথে মানে’ শীর্ষক বারোয়ারী বিতর্ক, সন্ধ্যা ৭টায় আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ এবং আনন্দধ্বনি সংগীত শিক্ষায়তনের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। রাত সাড়ে ৯টায় মেলার সমাপ্তি ঘোষণা হবে।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

ফেসবুকে ভাষা বদল করবেন যেভাবে

অনলাইন ডেস্ক বর্তমান যুগে ফেসবুক ব্যবহার করেন না এমন মানুষ পাওয়াই দুষ্কর। ...