সর্বশেষ সংবাদ
Home / সারাদেশ / বসন্ত ও বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে মেঘনা মোহনায় হাজারো মানুষের ঢল

বসন্ত ও বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে মেঘনা মোহনায় হাজারো মানুষের ঢল

মানিক দাস ॥ পহেলা ফাল্গুন বসন্ত উৎসব আর বিশ্ব ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে চাঁদপুর শহরের ফুলের ব্যবসায়ীদের এ বছর ব্যবসায় মন্দা ভাব লক্ষ্য করা গেছে। ২টি দিবস একই দিনে হওয়ায় ফুলের দোকানগুলোতে পর্যাপ্ত ফুল তুললেও দোকানে বিক্রি হয়নি তেমন। শহরের হাসান আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠের পাশ ঘেষেই এসব ফুলের দোকান। তাছাড়া চাঁদপুর জেলার সকল উপজেলার মানুষ বিশ্ব ভালোবাসা দিবসটিকে স্মরণীয় করে রাখতে ছুটে এসেছিলো চাঁদপুর শহরের বড়স্টেশন মোলহেডে মেঘনাপাড়ে।
রোমের সেন্ট ভ্যালেন্টাইন নামক এক ধর্মযাজক চিকিৎসক এই বিশ্ব ভালোবাসা দিবস অর্থাৎ ভ্যালেনটাইনস ডে’র প্রবর্তক। ২৬৯ খ্রিস্টাব্দে ফাঁসিতে মৃত্যুর পূর্বে সে তার প্রেয়সীকে চিঠি লিখেছিলো তাতেই ভ্যালেন্টাইন শব্দ লিখা হয়। সেই থেকে এই ভ্যালেন্টাইনস ডে’র সৃষ্টি। ১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে চাঁদপুরের পুষ্প বিক্রয় কেন্দ্রগুলো আশানুরূপ ফুল বিক্রি হয়নি।
অপর দিকে গতকাল ১৪ ফেব্রুয়ারি সকালের চেয়ে বিকেলে শহর সরগরম হয়ে উঠে। চাঁদপুর জেলা সদরসহ আশপাশের উপজেলার মানুষজন ছুটে আসে চাঁদপুর বড় স্টেশন মেঘনা মোহনায় পাড়ে বসন্ত উৎসব ও বিশ্ব ভালবাসা দিবসটিকে স্মরণীয় করে রাখতে। সব বয়সী নারী পুরুষ তরুণ-তরুণীরা, স্বামী-স্ত্রী, বৃদ্ধ-বৃদ্ধা সবাই এ স্থানে ছুটে আসে। হাজারো মানুষের যেন মিলন মেলা বসেছিলো মেঘনা-ডাকাতিয়া মোহনায়। অনেকে তাদের মনের মানুষকে নিয়ে ইঞ্জিন চালিত নৌকা ভাড়া করে নদীতে ঘুরে সময় কাটিয়ে ভালোবাসাকে স্মরণীয় করে রাখে। আবার অনেকে তাদের সন্তানদের সাথে নিয়ে এসে অস্তমিত সূর্যের লাল আভা ডুবার দৃশ্য অবলোকন করে আবার অনেকে ছুটে গেছে ইঞ্জিনচালিত নৌকা নিয়ে পদ্মা মেঘনার বুকে জেগে উঠা চরে। যেন বড়স্টেশন মেঘনা মোহনায় ভালোবাসা দিবসের মিলন মেলা বসে।

অনেক তরুণ-তরুনী একা একাই এই স্থানে এসে বসে ছিলো। আবার প্রেমিক যুগল আরসিসি ব্লকের বসে ঘন্টার পর ঘন্টা খোশ গল্পে মজে ছিলো। সন্ধ্যার পর দূরদূরান্ত থেকে আসা জুলিয়েটরা স্ব-স্ব গাড়ি নিয়ে মেঘনা মোহনার স্থান ত্যাগ করে বাড়ি ফিরে যায়। ওই দিন এই স্থানে কুমিল্লার মুরাদনগর থেকে ফারিয়া তিশা পরিবহনের বাস নিয়ে শিক্ষা সফরে সকাল থেকে এসেই আনন্দে মেতে উঠে। তাছাড়াও কুমিল্লা থেকে বোগদাদ বাস নিয়ে শিক্ষা সফরে আসে শিক্ষার্থীরা। সুন্দরবন-৮ লঞ্চ ভাড়া করে আরও একটি শিক্ষা সফরকারী দল এসেছিল শেষ বিকেলের দিকে। তাদের সাথে কথা হলে তারা জানায় আজকের দিনটি শুক্রবার হওয়ায় আমরা চাঁদপুরের এই মোহনায় এসেছি। শুধু শুক্রবার নয় সরকার ঘোষিত ২টি দিবস একই দিনে হওয়ায় আমরা সবাই একত্রিত হয়েছি। এমনিভাবে মোহনা ছাড়াও প্রেসক্লাব ঘাট, ডাকাতিয়া নদীর পাড়, গাছতলা ব্রিজ ও নতুনবাজার-পুরাণবাজার ব্রিজের উপর লোকসমাগম ছিলো বেশি।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

x

Check Also

নেত্রকোণায় রাস্থায় জীবাণু নাশক ছিটালেন সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী

জাহাঙ্গীর আলম,নেত্রকোণাঃ নেত্রকোণা শহর জীবাণুমুক্ত রাখতে রাস্থায় জীবাণু নাশক ছিটালেন সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ...