সর্বশেষ সংবাদ
Home / সারাদেশ / লক্ষ্মীপুরে পরিবারের দাবী হার্ট এটাকে বৃদ্ধের মৃত্যু প্রশাসনের সন্ধেহ করোনা: ১৫ বাড়ি লকডাউন

লক্ষ্মীপুরে পরিবারের দাবী হার্ট এটাকে বৃদ্ধের মৃত্যু প্রশাসনের সন্ধেহ করোনা: ১৫ বাড়ি লকডাউন

নুরুল আমিন দুলাল ভূঁইয়া জেলা প্রতিনিধি লক্ষ্মীপুর 

লক্ষ্মীপুরের জর, সর্দি ও ডায়রিয়া নিয়ে ৭০ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ মারা যাওয়ার ঘটনায় একটি বাড়ি লকডাউন করেছে প্রশাসন। আজ বৃহস্পতিবার( ২ এপ্রিল) সকাল ১১ টার দিকে লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম আজিজুর রহমান মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ জানায়, বুধবার (১ এপ্রিল) বিকেলে সদর উপজেলার ৩ নং দালাল বাজার ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের মো: আমিন বেপারি বাড়ীর রেজাউল করিম(৬৫) নামে এক বৃদ্ধ মারা যান। আজ সকালে তার মরদেহ ইসলামী শরিয়ত মোতাবেক দাফন করা হয়। প্রশাসন বলছে মৃত্যুর সময় ওই বৃদ্ধের শরীরে জ্বর, সর্দি ও ডায়রিয়া ছিল।

মৃত রেজাউল করিমের ছেলের দাবী হার্ট এটাকে তার বাবার মৃত্যু হয়েছে। এবং অনেক দিন থেকে তাঁর বাবার হার্টের চিকিৎসা তারা করে অাসছন বলে জানান।

সিভিল সার্জন ও জেলাপ্রশাসকের  সমন্বয়ে প্রশাসনের নির্দ্দেসে পুলিশ ওই বাড়ির ১৫ টি পরিবারকে লকডাউন করে দিয়েছে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত সবগুলো পরিবার লকডাউনে আওতায় থাকবে।

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার (ওসি) একেএম আজিজুর রহমান মিয়া বলেন, করোনা উপসর্গ নিয়ে ওই বৃদ্ধ মারা গেছেন এমন তথ্য সঠিক কিনা তাহা নমুনা পরিক্ষার রিপোর্ট আসলে বলা যাবে। নিরাপত্তা ও সতর্কতার জন্য স্বাস্থ্য বিভাগের সমন্বয়ে ওই বাড়িটি লকডাউন করা হয়েছ।

জেলা সিভিল সার্জন ড. আবদুল গাফ্ফার জানান, এ ঘটনায় কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে দালাল বাজার এলাকার ১৫টি পরিবারকে। গতকাল জ্বর, শ্বাসকষ্ট নিয়ে সদর হাসপাতালে ভর্তি হন ৭০ বছরের বৃদ্ধ রেজাউল করিম। পরে রাতেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। তবে করোনা ছিল কি না তা বলা যাচ্ছে না। পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকা প্রেরণ করা হয়েছে। নিহতের বাড়ির আশপাশের কয়েকজন সম্প্রতি ইতালি থেকে এসেছেন বলে জানিয়েছে পরিবার। পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া ও নমুনা পরিক্ষার রিপোর্ট না আশা পর্যন্ত ওই বাড়ীর ১৫ টি পরিবার লকডাউনে থাকবে।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

x

Check Also

মতলব উত্তরে করোনা ভাইরাসের আরো এক রোগী শনাক্ত

খান মোহাম্মদ কামালঃ চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় নতুন করে আরো একজন করোনা ...