সর্বশেষ সংবাদ
Home / অপরাধ / ফরিদগঞ্জে স্বামীর উপর্যপুরি ছুরিকাঘাতে স্ত্রীর পর এবার শ্বাশুড়ীও নিহত !

ফরিদগঞ্জে স্বামীর উপর্যপুরি ছুরিকাঘাতে স্ত্রীর পর এবার শ্বাশুড়ীও নিহত !

এমকে মানিক পাঠান
পারিবারি বিরোধকে কেন্দ্র করে চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে বিদেশ ফেরত আল-মামুন মহনের উপুর্যপরি ছুরিকাঘাতে ঘটনাস্থলেই তার স্ত্রী কলেজ ছাত্রী তানজিনা আক্তার রিতু মারা যাওয়ার একদিন পরই হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা গেছে শ্বশুড়ী পারভিন আক্তার। মহনের শ্বাশুড়ী পারভিন আক্তারের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেয়ার পথে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। নির্মম এ ঘটনায় নিহতের বাড়িতে এখন শোকের মাতম বইছে।
পুলিশ ও নিহতের পারিবারিক সুত্র জানায়, গত ১৩মে শুক্রবার সন্ধায় তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে স্বামী আল-মামুন মহন প্রথমে তারই স্ত্রী তানজিনা আক্তার রিতুকে ছুরিকাঘাত করার সময় রিতুর চিৎকারে মা পারভিন বেগম এগিয়ে আসলে তাকেও উপুর্যপরি ছুরিকাঘাত করে। তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে স্ত্রী রিতুর মৃত্যু হলেও শাশুড়ি পারভীন একদিন চাঁদপুর সরকারী হাসপাতালে থাকা অবস্থায় তার অবনতি দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য শুক্রবার ভোরে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।

পথিমধ্যে পারভিন আক্তার মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে । এ ঘটনার সংবাদ পাওয়ার পর নিহতের বাড়িতে এখন শোকের মাতম বইছে।
তথ্যানুসন্ধানে জানা গেছে, দুই পরিবারের সম্মতিতে ২০১৭ সালের ১৩ ডিসেম্ভও পাশবর্তী রায়পুর উপজেলার দেবীপুর গ্রামের আলহাজ¦ মনতাজ মাষ্টারের ছেলে আল মামুন মহনের সাথে ফরিদগঞ্জ উপজেলার গৃদকালিন্দিয়া গ্রামের প্রবাসী সেলিম খাঁনের কলেজ পড়ুয়া মেয়ে তানজিনা আক্তার রিতুর সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের কয়েক মাস পর থেকেই মহন বিদেশ যেতে তার শ্বশুর পক্ষের কাছে টাকা দাবি করতে থাকে। এই টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্য দেখা দেয়ার পাশাপাশি একে অপরের প্রতি সন্দেহ করতে থাকে। এক পর্যায়ে মহন ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে গত ১৩ মে দুজনে তর্কবিতর্কেও এক পর্যায়ে মহনের কাছে থাকা ধারালো ছুরি দিয়ে সে প্রথমে তার স্ত্রী ও পওে শ্বাশুড়ীকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। পালিয়ে যাওয়ার সময় এলাকাবাসীর সহযোগিতায় ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশ ঘাতক মহনকে বাড়ির পাশবর্তী স্থান থেকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে।
এদিকে খুনের ঘটনায় প্রধান আসামী রিতুর স্বামী আল মামুন মহনকে বৃহষ্পতিবারে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয়ার জন্য আদালতে হাজির করা হলেও সে তার স্ত্রী ও শ্বাশুড়ীকে ছুরিকাঘাত করার বিষয়টি অস্বীকার করায় তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার ওসি আব্দুর রকিব বলেন, বিদেশ ফেরত আল মামুন মহনের বিরুদ্ধে তারই চাচা শ্বশুর লিয়াকত খাঁন বাদী হয়ে মহন ও তার ভাই সুমন হোসেন (৪৫) বোন মনি বেগম মায়ার (৪৮) আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। উক্ত ঘটনাটি আদালতে অস্বীকার করায় সঠিক তথ্য প্রাপ্তির স্বার্থে মহনকে জিঙ্গাসাবাদের জন্য রিমান্ডে আনার প্রক্রিয়া চলছে।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

x

Check Also

মাধবদীতে ৬ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ,সিসিটিভি ফুটেজ দেখে আটক-৩

স্টাফ রিপোর্টার : নরসিংদীর মাধবদীতে একটি মাদ্রাসার কক্ষে ডেকে নিয়ে ৬ বছরের ...