সর্বশেষ সংবাদ
Home / সারাদেশ / মুরাদনগরে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া জাহাঙ্গীর আলম লাশ দাফন করল যুবলীগ

মুরাদনগরে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া জাহাঙ্গীর আলম লাশ দাফন করল যুবলীগ

আবুল কালাম আজাদ, কুমিল্লা প্রতিনিধি: ভুবনঘর গ্রামের পূর্বপাড়ার জাহাঙ্গীর আলম উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া এক ব্যক্তির লাশ দাফন করল মুরাদনগর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ। মো: জাহাঙ্গীর আলম (৩৮) শুক্রবার রাত সাড়ে তিনটায় করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যায়। মৃত ব্যক্তির দাফন কাজে এলাকার চেয়ারম্যান, মেম্বারসহ কেউ এগিয়ে আসেনি। পরে উপজেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক রুহুল আমিনের নেতৃত্বে গঠিত যুবলীগের সেচ্ছাসেবক টিম ধর্মীয় নিয়মানুযায়ী শনিবার দুপুরে ওই ব্যাক্তির লাশ দাফন সম্পন্ন করেন।

 

জানাযায়, কুমিল্লার মুরাদনগরে করোনার ভুবনঘর গ্রামের পূর্বপাড়ার মৃত বাচ্চু মিয়ার ছেলে মৃত জাহাঙ্গীর আলম ঈদে পরদিন থেকে জ্বর, শর্দি-কাশিতে ভুগছিলেন। তাছাড়া তিনি অনেকদিন ধরে লাঞ্চের সমস্যায়ও ভুগছিলেন।
যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক রুহুল আমিন বলেন, আমরা ইতিমধ্যে লক্ষ্য করেছি করোনা আক্রান্ত বা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণকারী কাউকে দাফনে নিজ পরিবারসহ আত্মীয় স্বজন কেউ এগিয়ে আসে না। তাই আমরা মাননীয় এমপি ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন এফসিএ মহোদয়ের নির্দেশে এ মানবিক কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। টেলিফোনে মৃত্যুর খবর পাওয়ার পর থেকেই শুরু হয় আমাদের কাজ। লাশের গোসল থেকে শুরু করে দাফনসহ বিভিন্ন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে তারপর আমরা ঘরে ফিরি। বেশির ভাগ সময় লাশের গোসল দিয়ে কবরস্থানে কবর দেওয়া পর্যন্ত মৃত ব্যক্তিদের স্বজনেরাও ভয়ে কাছে আসেন না। তবে আমরা ভয় পাই না। এই মৃত ব্যক্তিরা তো আমাদেরই কারও না কারও আত্মীয়-স্বজন। তবে অত্যন্ত দু:খের বিষয় হলো রাত সাড়ে ৩ টায় মারা যাওয়ার পর থেকে সকাল পর্যন্ত পাড়া প্রতিবেশী, আত্মীয় স্বজন কেউ এগিয়ে আসেনি। এমনকি এলাকার চেয়ারম্যান, মেম্বার ও প্রশাসনকে অবহিত করার পরও কারো কাছ থেকে কোন সহযোগীতা পায়নি। আমাকে জানানো মাত্র আমি আমার টিম নিয়ে মৃত ব্যক্তির বাড়িতে হাজির হই। মুরাদনগর যুবলীগ এ পর্যন্ত আমরা তিনজন মৃত ব্যক্তির দাফন সম্পন্ন করেছে। ভবিষ্যতেও আমাদের এ কাজ অব্যাহত থাকবে।
জানা যায়, আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক এফবিসিসিআই’র সাবেক সভাপতি স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুন এফসিএ’র নির্দেশনায় করোনার প্রাদুর্ভাবের শুরুর দিকেই কোভিড ১৯এ আক্রান্ত হয়ে ও উপসর্গ নিয় মারা যাওয়া ব্যক্তিদের দাফনের জন্য উপজেলা যুবলীগের পক্ষ থেকে ১১জন সদস্যের একটি কমিটির ঘোষণা দেন উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক মোঃ রুহুল আমিন। কমিটির সদস্যরা হলো, উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক মোঃ রুহুল আমিন, সদস্য মাওঃ আবুল বাশার, মাহাবুল হক, মোমেন, নাসির, আলাউদ্দিন, বাবু, মামুন, ইয়াসিন, মাসুম, সাইফুল।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

x

Check Also

বীরগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয়ের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মাঝে রেইনকোট বিতরণ

বীরগঞ্জ দিনাজপুর প্রতিনিধি রনজিৎ সরকার রাজ ॥ দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয়ের ...