সর্বশেষ সংবাদ
Home / আন্তর্জাতিক / আমরা এখনও করোনাভাইরাসের শুরুতে আছি: ফাউচি

আমরা এখনও করোনাভাইরাসের শুরুতে আছি: ফাউচি

অনলাইন ডেস্ক
বিশ্ব থেকে করোনাভাইরাসের মহামারি দূর হতে এখনও অনেক সময় বাকি বলে সতর্ক করেছেন বিশিষ্ট মার্কিন চিকিৎসক অ্যান্থনি ফাউচি।

বায়োটেকনোলজি ইনোভেশন অর্গানাইজেশনের আন্তর্জাতিক এক সম্মেলনে মঙ্গলবার রেকর্ড করা এক ভিডিও বার্তায় যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় অ্যালার্জি ও সংক্রামক রোগের ইনস্টিটিউটের পরিচালক ফাউচি করোনাভাইরাসকে তার ‘সবচেয়ে খারাপ দুঃস্বপ্ন’হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

তিনি বলেন, ‘এখন আমরা এমন কিছু দেখছি যা আমার সবচেয়ে খারাপ দুঃস্বপ্ন হয়ে এসেছে। চার মাসের ব্যবধানে এটি বিশ্বকে বিধ্বস্ত করে দিয়েছে।’

তিনি মনে করেন, ইবোলা ভাইরাসও ভীতিজনক ছিল। তবে ইবোলা সহজে সংক্রামিত হতে পারে না। ইবোলার প্রাদুর্ভাব সবসময় একেবারেই স্থানীয় হয়।

এইচআইভিকে গুরুত্ব দিয়েও ফাউচি জানান, অনেকেই এইডসকে হুমকি মনে করে না কারণ এটা নির্ভর করে নানা আনুষাঙ্গিক বিষয়ের ওপর।

অতীতে ফাউচিকে তিনি সবচেয়ে ভয় পান এমন একটি সম্ভাব্য রোগ সম্পর্কে বর্ণনা করতে বললে তিনি তখন বলতেন, সেই রোগটি হবে নতুন ধরনের শ্বসনতন্ত্রের সংক্রমণ যা হয়তো কোনো পশু থেকে মানুষে আসবে এবং এটি অত্যন্ত উচ্চমাত্রায় ছড়াবে।

এসব বৈশিষ্ট্যের সবকটিই কোভিড-১৯ এর ক্ষেত্রে বিরাজমান। এমনটি জানিয়েছেন স্বয়ং ফাউচি।

তিনি আরও বলেন, বিশ্বে এটি অপ্রত্যাশিত গতিতে ছড়িয়ে পড়েছে এবং এটি এখনও শেষ হয়নি।

ফাউচি মনে করেন, রোগীদের ওপর কোভিড-১৯ এর দীর্ঘমেয়াদে নেতিবাচক প্রভাব সম্পর্কে এখনও অনেক কিছু জানার বাকি। ভাইরাসটি নিয়ে এখনও পর্যাপ্ত অভিজ্ঞতা নেই বলে বিজ্ঞানীরা জানেন না সেরে ওঠা রোগীদের ছয় মাস পর কী হবে।

তাই তিনি বলেন, কোভিড-১৯ সম্পর্কে এখনও আমাদের অনেক কিছু শেখার বাকি আছে।

তিনি আরও বলেন, আমরা কোথায় এর শেষ হবে জানিনা। আমরা এখনও এর শুরুতে আছি।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। নিউমোনিয়ার মতো লক্ষণ নিয়ে নতুন এ রোগ ছড়াতে দেখে চীনা কর্তৃপক্ষ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে সতর্ক করে। এরপর ১১ জানুয়ারি প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের সর্বশেষ পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়, এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বিশ্বের মোট ৭৩ লাখ ২৩ হাজার ৮০৯ জন। এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ১৩ হাজার ৭৩৩ জনের।

করোনাভাইরাস এর লক্ষণ শুরু হয় জ্বর দিয়ে, সঙ্গে থাকতে পারে সর্দি, শুকনো কাশি, মাথাব্যথা, গলা ব্যথা ও শরীর ব্যথা। সপ্তাহখানেকের মধ্যে দেখা দিতে পারে শ্বাসকষ্ট। উপসর্গগুলো হয় অনেকটা নিউমোনিয়ার মতো। এই রোগ মূলত শ্বাসতন্ত্রে সংক্রমণ ঘটায়।

তবে ডায়াবেটিস, কিডনি, হৃদযন্ত্র বা ফুসফুসের পুরনো রোগীদের ক্ষেত্রে ডেকে আনতে পারে মৃত্যু। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ভালো হলে এ রোগ কিছুদিন পর এমনিতেই সেরে যেতে পারে।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

x

Check Also

জেলহাজতে এমপি পাপুল, উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করল কুয়েত

অনলাইন ডেস্ক কুয়েতে অর্থ ও মানবপাচারের অভিযোগে আট দিনের রিমান্ড শেষে বাংলাদেশের ...