সর্বশেষ সংবাদ
Home / মুক্তমত / মিটার ভাড়া

মিটার ভাড়া

আজাদ হোমেন

যারা মিটার ভাড়া নিয়ে না বুঝে অনেক কিছুই বলে যাচ্ছেন দয়া করে তারা একটু সময় নিয়ে পড়বেন, মিটার ভাড়া কি ও কেনঃ- – পল্লী বিদ্যুৎ বেশিরভাগই গ্রামীণ মানুষকে বিদ্যুৎ সেবা দিয়ে থাকে। যাদের অধিকাংশ সচ্ছল না। একটি ১ ফেইজ মিটারের দাম ১২০০/১৫০০ টাকা। অনেক গ্রাহকের উক্ত টাকা দিয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ নেয়ার মতো সাধ্য নাই। তাই ১০ টাকা মাস প্রতি নিয়ে থাকে। একটি মিটারের আয়ু সচরাচর ১০ বছর।তাহলে ১০ বছর x ১২ মাস x ১০ টাকা = ১২০০ টাকা।

তবে মিটার বেশিরভাগই ১০ বছরের আগেই নষ্ট হয়ে যায়।এমনকি ১০ দিন কিংবা ১ মাসেও নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তখন গ্রাহককে বিনামূল্যে পুনরায় নতুন মিটার দেওয়া হয়। প্রতি মাসে ১০ টাকা গ্রাহক স্বার্থেই করা হয়, যাতে গ্রাহক সুবিধা পায়। কিন্তু, কোন গ্রাহক যদি নিজে মিটার কিনে নেয়, তবে তাকে মিটার ভাড়া দিতে হয় না। এক্ষেত্রে যদি মিটার নষ্ট হয়ে যায় তবে গ্রাহককে আবার টাকা দিয়ে কিনতে হবে। – ১০ বছর পরেও কি মিটার ভাড়া চলতেই থাকবে? উত্তর হচ্ছে, হ্যাঁ। কারণ, ১ মাস পরেও যদি কোন গ্রাহকের মিটার নষ্ট হয়, তখন যেহেতু কোন টাকা নেওয়া হয় না, তাই ১০ বছর পরেও যদি মিটার ভালো থাকে, মিটার ভাড়া চলতেই থাকবে। বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ অনেকেই ভাবেন সংযোগ গ্রহণের সময় মিটার কিনে নিয়েছেন বাস্তবে আবাসিক ১ কিলোওয়াট লোডের গ্রাহকের নিকট আবেদন ফি ১১৫ টাকা , গ্রাহকের জামানত হিসাবে ৪০০ টাকা এবং সদস্য ফি ৫০ টাকা মোট ৫৬৫ টাকা দিয়ে সংযোগ প্রদান করা হয়।

গ্রাহকের সদস্য পদ বাতিল করতে চাইলে তার সংযোগ বিচ্ছিন্নের পর মিটার অফিসে জমা হলে তিনি জামানত ও সদস্য ফি বাবদ ৪৫০ টাকা ফেরৎ পাবেন। – আরো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড ৪.৩৬৭৯ টাকা রেটে বিদ্যুৎ ক্রয় করে থাকে। পল্লী বিদ্যুৎ সরকারের সেবামূলক প্রতিষ্ঠান , সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী গ্রামের আবাসিক গ্রাহকদেরকে ০-৭৫ ইউনিটের দাম নিচ্ছে ৪.১৯ টাকা রেটে। মোট ৩ কোটি গ্রাহকের মধ্যে ২কোটির অধিক গ্রাহক এই তালিকার অন্তর্ভুক্ত। আপনার ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে বিদ্যুৎ অফিসের সকল কর্মকর্তা / কর্মচারী এই কঠিন মুহুর্তেও নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। আপনি ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন, সবাই সবার জন্য দোয়া করুন।

লেখক
মোঃ আজাদ হোসেন
কো অডিনেটর, চাঁদপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২, বনবিভাগ সড়কস্থ, চাঁদপুর।
পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

x

Check Also

মতলব উত্তরে এনায়েত নগরের দ্যা সরকার কটেজ পর্যটন কেন্দ্র হতে পারে

মানিক দাস// গ্রামের পরিবেশে এরকম সুন্দর কটেজ বা বাংলো কেউ দেখেছে কিনা ...