সর্বশেষ সংবাদ
Home / সারাদেশ / চাঁদপুর শহরে বেপরোয়া ট্রাকের ধাক্কায় ত্রি মুখি সংঘর্ষ।। আহত ৫

চাঁদপুর শহরে বেপরোয়া ট্রাকের ধাক্কায় ত্রি মুখি সংঘর্ষ।। আহত ৫

মানিক দাস // চাঁদপুর শহরে বেপরোয়া মাছ বুঝাই ট্রাকের ধাক্কায় মোটর সাইকেল, সিএন জি স্কুটার ও রিক্সার মধ্যে ত্রী মুখি সংঘর্ষ হয়েছে। এ দুঘটনায় ৫ জন আহত হয়েছে।ট্রাক চালক কে ট্রাফিক পুলিশ আটক করে থানায় হস্তান্তর করেছে।
দুঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টায় চাঁদপুর শহরের নতুন বাজার -পুরান বাজার ব্রিজের পালবাজার এলাকায়। ট্রাক চালক কেফায়েত উল্লাহ জানান, হাতিয়া থেকে ইলিশ মাছের চালান নিয়ে সে বড় স্টেশন মাছ ঘাটে যাচ্ছিল।

বৃস্টির কারণে রাস্তা পিচ্ছিল থাকায় গাড়িটি নিয়ন্ত্রন করা সম্ভব হয়নি যার ফলে এ দুঘটনা।স্হানীয়রা জানায়,ঢাকা মেট্রো ন ১১-৯৪৬৪ মাছ বোঝাই ট্রাকটি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে চাঁদপুর ল ১১-১৬২৩ মোটর সাইকেল আরোহিকে ধাক্কা দেয়। মোটর সাইকেলটি ট্রাকের সামনের চাকার নিচে আটকা পরে। মোটর সাইকেল আরোহি রিপন (৩৮)কে স্হানীয়রা আহতবস্হায় উদ্ধার করে। একই সাথে চাঁদপুর থ ১১- ৬৫৯২ সি এন জি স্কুটার ও একটি রিক্সা কেও ধাক্কা দেয়। এতে রিপন (৩৮),খোরশেদ আলম (৪০),কালু (৩২)ও মিজান (৫৯) সহ ৫ জন আহত হয়।এদের কে স্হানীয়রা উদাধার করে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।ট্রাক চালক কেফায়েত উল্লা কে আটক করে থানা কাজতে রাখা হয়েছে।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

x

Check Also

ঠাকুরগাঁওয়ে ভারীবর্ষণে পানিতে ভেসে গেল কোটি টাকার পাকা রাস্তা

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায়  ভারীবর্ষণে পানিতে ভেসে গেছে কোটি টাকা দিয়ে ছয় মাস আগে নির্মাণ করা জাউনিয়া-সাবাজপুর গ্রামের চলাচলের একমাত্র পাকা রাস্তা। এতে ভোগান্তিতে পড়েছে জাউনিয়া, সাবাজপুরসহ কয়েকটি গ্রামের হাজার মানুষ। স্থানীয়রা জানায়, মাটি ভরাট করে উঁচু না করে রাস্তা নির্মাণ ও নিম্নমানের পাকাকরণ কাজের জন্য দ্বিতীয় বারের মত সাবাজপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের পশ্চিম পার্শের রাস্তাটি পানিতে ভেসে গেছে। এতে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে মূল শহরের সাথে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে জাউনিয়া, সাবাজপুরসহ বেশ কয়েকটি গ্রামের। সাবাজপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ জানান, রাস্তাটি পাকাকরণ করার এক বছরও হয়নি। অতিবৃষ্টির ফলে প্রায় ৮০ শতাংশ রাস্তা ভেসে গেছে পানিতে। রাস্তাটি সংস্কারের জন্য স্থানীয় প্রকৌশলীকে বলা হয়েছে। দ্রুত সংস্কার না করা গেলে বিদ্যালয়ে যাতায়াতসহ স্থানীয়দের চরম ভোগান্তি পোহাতে হবে। উপজেলা প্রকৌশল সুত্রে জানা যায়, গেল ছয় মাস আগে প্রায় কোটি টাকা বরাদ্দে জাউনিয়া বাজার থেকে সাবাজপুর গ্রাম পর্যন্ত দেড় কিলোমিটার রাস্তা পাকাকরণ করা হয়। কাজটি সম্পন্ন করার সময় স্থানীয়দের দাবি ছিল রাস্তাটি উঁচু করে মাটি ভরাটের পর পাকা কারণ করার। তবে সেটি না হওয়ার কারণে পানিতে ভেসে গেছে সব। এবিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী মাইনুল ইসলামের সাথে ...