সর্বশেষ সংবাদ
Home / জাতীয় / ফরিদগঞ্জে প্রয়াত দুই সেক্টর কমান্ডারের স্মরণে স্বরণ সভায়স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত

ফরিদগঞ্জে প্রয়াত দুই সেক্টর কমান্ডারের স্মরণে স্বরণ সভায়স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত

আমাদের সোনালী প্রজন্ম বীরমুক্তিযোদ্ধারা ক্রমশ: হারিয়ে যাচ্ছে, তাই প্রতিটি অনুষ্ঠানে আমরা এসব বীরমুক্তিযোদ্ধাদের কাছ থেকে মুুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস শুনি …… মাক্ছুদুর রহমান পাটওয়ারী, সচিব ভূমি মন্ত্রনালয়

স্টাফ রিপোর্টার :
ফরিদগঞ্জ উপজেলা সেক্টর কমান্ডার ফোরাম মুক্তিযুদ্ধ ৭১ এর উদ্যোগে সদ্য প্রয়াত ফরিদগঞ্জের কৃতিসন্তান মুক্তিযুদ্ধের ৮নং সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার লে: কর্নেল(অব:) আবু ওসমান চৌধুরী ও মুক্তিযুদ্ধের ৪নং সেক্টরের সেক্টর কমান্ডার মেজর জেনারেল (অব:) সি আর দত্ত বীরউত্তম স্মরণে স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শনিবার বিকালে ফরিদগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ের যুদ্ধাহত বীরমুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের পাটওয়ারীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ভুমি মন্ত্রনালয়ের সচিব মো: মাক্ছুদুর রহমান পাটওয়ারী তিনি বলেন, আমার মতো আরো অনেক সচিব, অনেক গুণিজন ভবিষ্যতে পাবেন। কিন্তু একজন বীরমুক্তিযোদ্ধা বা একজন সেক্টর কমান্ডার পাবেন না । যারা আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে নিজেদের জীবন উৎসর্গ করে পাক বাহিনীর বিরুদ্ধে ঝাঁিপয়ে পড়েছিলেন। তাই এসব সূর্য্য সন্তানদের স্মৃতি আমাদের ধরে রাখতে হবে।
সেক্টর কমান্ডার লে: কর্ণেল (অব:) আবু ওসমান চৌধুরীর স্মৃতিচারণ করে তিনি বলেন, কেন তিনি ২৫ মার্চ রাতে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর একজন মেজর হয়েও বঙ্গবন্ধুর ডাকে যুদ্ধে নেমে পড়েছিলেন। তিনি একজন সাদা মনের মানুষ ছিলেন। তার জীবনের প্রতিটি মূহূর্ত ত্যাগে পরিপূর্ণ।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু মুজিবুর রহমানের নির্দেশে তিনি যেই সাহস দেখিয়েছেন তা আমাদের গর্বের বিষয়। একই ভাবে আজকের স্মরনীয় আরেকজন সেক্টর কমান্ডার মেজর জেনারেল সি আর দত্ত বীর উত্তম। তাদের কারণে আজ আমরা সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ে বসে আছি। জনগণের টাকায় আমাদের সংসার চলে। অথচ আমরা সেই জনগণকেই মূল্যায়ন করি না। আমাদের সোনালী প্রজন্ম বীরমুক্তিযোদ্ধারা ক্রমশ: হারিয়ে যাচ্ছে। তাই এখনো সময় আছে, আসুন প্রতিটি অনুষ্ঠানে আমরা এসব বীরমুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান করি। তাদের কাছ থেকে মুুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস শুনি।
আজকে আমরা যেই বাংলাদেশ সরকারের কথা বলছি, সেই সরকার প্রথম মুজিব নগরে হয়েছিল। সেখানে রাজনৈতিক, সামরিক বাহিনী, সাধারণ জনতা এক ও ঐক্যবদ্ধ হয়েই সরকার গঠন প্রক্রিয়া অংশ নিয়েছিল। সেদিনও আমাদের ফরিদগঞ্জের কৃতি সন্তান সামরিক বাহিনীর পক্ষে মুজিবনগর সরকারকে স্যালুট দিয়েছিলেন।
ছাত্রকমান্ড সভাপতি ও উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহবুব আলম সোহাগের সঞ্চালনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রনালয়ের উপসচিব মো: হাবিবুর রহমান বলেন, সেক্টর কমান্ডার আবু ওসমার চৌধুরীকে স্মৃতি সংরক্ষণের জন্য বিশেষ পরিকল্পনা রয়েছে। নতুন প্রজন্ম যাতে এসব আদর্শবান মানুষের সংগ্রামী ইতিহাস পড়ে নিজেদের আগামী দিনে প্রকৃত মানুষ হিসেবে তৈরি করতে পারে।
এসময় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাড. জাহিদুল ইসলাম রোমান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাাধারণ সম্পাদক আবু সাহেদ সরকার, যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য মহিউদ্দিন খোকা, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার শহিদুল্লা তপাদার, উপজেলা সেক্টর কমা-ারস ফোরাম এর সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ এম তবিবুল্ল্যাহ, জেলা আওয়ামীলীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আবুল কাশেম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহসভাপতি রফিকুল আমিন কাজল, যুগ্মসম্পাদক ওয়াহিদুর রহমান রানা, আলমগীর হোসেন, উপজেলা ওলামালীগের সভাপতি অধ্যক্ষ মাও. মিজানুর রহমান খন্দকার।
আলোচনা শেষে প্রয়াত দুই সেক্টর কমা-ারসহ সকলের জন্য দোয়া ও মুনাজাত করা হয়।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

x

Check Also

কক্সবাজারের ৩৪ পুলিশ পরিদর্শককে একযোগে বদলি

নিজস্ব প্রতিবেদক পুলিশের কক্সবাজার রেঞ্জের ৩৪ জন ইন্সপেক্টরকে (পরিদর্শক) একযোগে বদলি করা ...