সর্বশেষ সংবাদ
Home / আন্তর্জাতিক / ভারতে অক্সিজেনের তীব্র সংকট

ভারতে অক্সিজেনের তীব্র সংকট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
ভারতের হাসপাতালগুলোতে অক্সিজেনের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। দিল্লি রাজ্য সরকারের মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল মঙ্গলবার এক টুইটবার্তায় জানিয়েছেন, সেখানকার অনেক হাসপাতালে আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা চলার মতো অক্সিজেন অবশিষ্ট আছে।
মঙ্গলবারের টুইটবার্তায় কেজরিওয়াল বলেন, ‘দিল্লির হাসপাতালগুলোতে অক্সিজেনের তীব্র সংকট চলছে। আমি কেন্দ্রীয় সরকারকে জরুরিভিত্তিকে অক্সিজেন পাঠানোর আহ্বান জানাচ্ছি। কিছু হাসপাতালে আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা চলার মতো অক্সিজেন মজুত আছে।’

পৃথক এক টুইটবার্তায় দিল্লির উপ মুখ্যমন্ত্রী মনিশ সিসোদিয়া বলেন, ‘দিল্লির অনেক হাসপাতালে অক্সিজেনের জন্য হাহাকার চলছে। আমরা জানতে পেরেছি, করোনা উপদ্রুত রাজ্যগুলোতে অক্সিজেন পাঠাতে অন্যান্য রাজ্যগুলোর সহযোগিতা পাওয়া যাচ্ছে না।’

সিসোদিয়া বলেন, ‘আমরা বলতে চাই, উদ্ভুত পরিস্থিতিতে অক্সিজেন সরবরাহের ক্ষেত্রে এ ধরনের মনোভাব খুবই অনাকাঙ্খিত ও দুঃখজনক। কেন্দ্রীয় সরকারকে এ দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানানো হচ্ছে।’

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছেন, দেশ একটি করোনাভাইরাস ‘ঝড়ের’ কবলে পড়েছে, যা স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থাকে নাকাল করে ফেলেছে। তিনি বলেন, কোভিড-১৯ এর প্রবল দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় কেন্দ্রীয় সরকার সাধ্যমত কাজ করে যাচ্ছে। দেশজুড়ে হাসপাতালের শয্যা, অক্সিজেন ও ভাইরাস প্রতিরোধক ওষুধ পর্যাপ্ত পরিমাণে সরবরাহ নিশ্চিত করতে স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে কেন্দ্র।

মঙ্গলবার দিল্লিতে কেন প্রয়োজনীয় সংখ্যাক অক্সিজেন সিলিন্ডার পাঠানো হচ্ছে না— এই নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ব্যাখ্যা তলব করেছিলেন দিল্লি হাইকোর্ট। এর জবাবে দিল্লির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, দিল্লিতে অক্সিজেন সরবরাহে কোনো ঘাটতি নেই এবং বিভিন্ন রাজ্যে অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিত করতে ইতোমধ্যে শিল্পখাতে অক্সিজেন ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে আরো বলা হয়, সম্প্রতি দিল্লিতে অক্সিজেনের চাহিদা ১৩৩ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে। সেই চাহিদা মেটাতে এখন পর্যন্ত সেখানে ৭০০ মেট্রিকটন অক্সিজেন পাঠানো হয়েছে। আদালতে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ব্যাখ্যা দেওয়ার ঘণ্টাখানেকের মধ্যে এই টুইট করেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী।

ভারতে বর্তমানে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ চলছে। এই পর্যায়ে করোনায় সংক্রমণ ও মৃত্যুতে দেশটির সবচেয়ে বিপর্যস্ত রাজ্যগুলোর একটিতে পরিণত হয়েছে দিল্লি। রাজ্যের স্বাস্থ্যবিভাগসূত্রে জানা গেছে, দিল্লিতে করোনা পরীক্ষা করাতে আসা প্রতি তিনজনে একজন ‘পজিটিভ’ হিসেবে শনাক্ত হচ্ছেন।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সোমবার সপ্তাহজুড়ে লকডাউন জারি করেছে দিল্লির রাজ্য সরকার। এদিকে, সোমবারই দিল্লিতে করোনায় নতুন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ২৩ হাজার ৬০০ জন, মহামারি শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত এটি দিল্লিতে একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড। সূত্র: রয়টার্স।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

x

Check Also

মমতাকে মোদির অভিনন্দন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক তৃণমূল কংগ্রেস বিধানসভা নির্বাচনে জয়ী হওয়ায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ...