সর্বশেষ সংবাদ
Home / আন্তর্জাতিক / দিনভর নাটকীয়তার শেষে মমতার হার

দিনভর নাটকীয়তার শেষে মমতার হার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
দিনভর হাড্ডাহাড্ডি লড়াই, জিতলেন মমতা, পরে শুভেন্দুর বিজয়, চললো বিভ্রান্তি, ফলাফল স্থগিত; সবশেষ রাতে ঘোষণা এলো নন্দীগ্রামে জয়ী শুভেন্দু অধিকারীই।

পশ্চিমবঙ্গের নন্দীগ্রাম আসনের ফলাফল নিয়ে নানা নাটকীতায় এক শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতি শেষে রিটার্নিং অফিসার জানায়, ১ লাখ ৯ হাজার ৬৭৩ ভোট পেয়েছেন বিজেপির শুভেন্দু। তৃণমূল নেত্রী মমতা পেয়েছেন ১ লাখ ৭ হাজার ৯৩৭ ভোট। আর সংযুক্ত মোর্চা সমর্থিত মিনাক্ষী মুখোপাধ্যায় ৬ হাজার ১৯৮ ভোট পেয়েছেন।

অর্থাৎ প্রাপ্ত ভোটের হিসেবে শুভেন্দুই এখন এগিয়ে। এছাড়াও নন্দীগ্রামে আর ভোট পুনর্গণনা হবে না বলেও জানিয়েছেন রিটার্নিং অফিসার। এমন খবর দিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা।

এর আগে সন্ধ্যা থেকে গণনা নিয়ে চলছিল টানাপড়েন। সার্ভারে সমস্যা থাকায় সঠিক তথ্য তুলে ধরতে পারছিলো না নির্বাচন কমিশন। তবে কারো জয়ের কোনো তথ্যই দেননি কমিশন। বরং ফলাফল ঘোষণা স্থগিত করার কথা জানিয়েছিলো রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক। নতুন করে ভোট গণনা হতে পারে বলেও জানানো হয়েছিলো। কিন্তু স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় রিটার্নিং অফিসার শুভেন্দুকে চূড়ান্ত বিজয়ী ঘোষণা করেন।

এর আগে নন্দীগ্রাম আসনে ভোটের লড়াই, নাকি সাঁপ লুডোর খেলা? ভোট গণনার শুরু থেকে তা বোঝার উপায় ছিল না। প্রথম থেকেই এগিয়ে ছিলেন বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। সময় যত এগিয়েছে ব্যবধানও বাড়ছিল। সম্মানের লড়াইয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আদৌ জিতবেন কি না তা নিয়েই সংশয় তৈরি হয়েছিল।

কিন্তু গণনা ১৪তম রাউন্ডে যেতেই পাশা উল্টে যায়। শুভেন্দুকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যান তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা। শেষ পর্যন্ত ১৭ রাউন্ড ভোটগণনার পর ১২০২ ভোটে নন্দীগ্রাম থেকে শেষ হাসি হাসলেন মমতাই- এমনই খবর জানায় এনডিটিভি, টাইমস অব ইন্ডিয়া ও আনন্দবাজার পত্রিকাসহ ভারতীয় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম।

এদিকে মমতার ভক্তরা জয়ের খবরে অভিনন্দন বার্তা দেয়া সবেমাত্র যখন শুরু করলো ঠিক তখনই এলো আরেকটি নতুন খবর। মমতা নয় বিজয়ী হয়েছেন শুভেন্দু! তবে কমিশনের পক্ষ থেকে তখনও পর্যন্ত এ নিয়ে কোনো বিবৃতি প্রকাশ করা হয়নি। শুরু হলো ফলাফল নিয়ে বিভ্রান্তি।

পশ্চিমবঙ্গের নন্দীগ্রাম আসনে আসলে কে জিতল, মমতা না শুভেন্দু। এ নিয়ে চলতে থাকলো ধোঁয়াশা! শুভেন্দু জিতেছেন বলে আনন্দবাজার তিনি নিজেই জানান। পত্রিকাটি তখন বড় অক্ষরে বলছিল ‘নন্দীগ্রাম দাদার’ অর্থাৎ মমতা হারলেন। অন্যদিকে এই ঘটনা নিয়ে কমিশনের উপর ক্ষোভ ঝাড়লেন মমতা।

জানালেন, নন্দীগ্রামের মানুষের রায় তিনি মেনে নিয়েছেন। তবে ভোট লুট হয়েছে বলে অভিযোগ করেন। এ কারণে আদালতে যাবেন বলেও জানান মমতা।

এর মধ্যেই আবার নতুন খবর আসে নন্দীগ্রামের ফলাফল আপাতত ‘স্থগিত’। সেখানে নতুন করে ভোট গণনা হবে। এর কিছুক্ষণ পরেই রিটার্নিং অফিসার শুভেন্দুকে বিজয়ী ঘোষণা করে জানান, নন্দীগ্রামে আর ভোট পুনর্গণনা হবে না। বিজয়ী হয়েছেন শুভেন্দুই।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

x

Check Also

মমতাকে মোদির অভিনন্দন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক তৃণমূল কংগ্রেস বিধানসভা নির্বাচনে জয়ী হওয়ায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ...