সর্বশেষ সংবাদ
Home / সারাদেশ / চাঁদপুরে লকডাউনে মাঠে থাকবে ভ্রাম্যমাণ আদালত :জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খানমজলিশ

চাঁদপুরে লকডাউনে মাঠে থাকবে ভ্রাম্যমাণ আদালত :জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খানমজলিশ

স্টাফ রিপোর্টার :
শুক্রবার সকাল ৬টা থেকেই চাঁদপুরে শুরু হচ্ছে কঠোর লকডাউন। করোনা সংক্রমণরোধে সরকারি বিধি-নিষেধ বাস্তবায়নে সকাল থেকেই জেলা প্রশাসনের সঙ্গে মাঠে থাকবে সেনাবাহিনী,বিজিবি, পুলিশ আনসার। চিকিৎসাসহ জরুরী প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাড়ির বাইরে বের হতে পারবেন না।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ বলেছেন,‘ লকডাউনে সকাল থেকেই ভ্রাম্যমাণ আদালত মাঠে থাকবে। সেই সাথে সেনাবাহিনী, বিজিবি, পুলিশ, আনসার বাহিনী মাঠে থাকবে । ’

তিনি বলেন,‘সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী লকডাউন বাস্তবায়নে আমরা কঠোর থাকবো। যেহেতু মিল কারখানা,অফিস-আদালতসহ সব কিছুই বন্ধ থাকবে সেহেতু মানুষের বাইরে যাওয়ার কোন কারণ নেই। চিকিৎসা কিংবা বাজার করাসহ জরুরী প্রয়োজন ছাড়া আর কোন কাজে বাইরে বের হওয়ার সুযোগ নেই।’

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ২৩ জুলাই সকাল ৬ টা থেকে ৫ আগস্ট দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ দিয়েছে সরকার।

করোনা সংক্রমণরোধে মন্ত্রি পরিষদ বিভাগের সর্বশেষ জারিকৃত নির্দেশনা মোতাবেক চাঁদপুর জেলা প্রশাসন এক গণবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ২৩ জুলাই সকাল ৬ টা থেকে ৫ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত আবারও কঠোর বিধি-নিষেধ জারির ঘোষণা দিয়েছে।

গণবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সকল সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত ও বেসরকারি অফিসসমূহ বন্ধ থাকবে। সড়ক, রেল ও নৌপথসহ সকল প্রকার গণপরিবহন চলাচল বন্ধ থাকবে। সেই সঙ্গে শপিংমল বা মার্কেটসহ সকল দোকানপাটও বন্ধ থাকবে। সকল পর্যটন কেন্দ্র, রিসোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার ও বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ থাকবে। ঈদের পরে বিধিনিষেধ কার্যকরের পর সবধরনের শিল্প কল-কারখানা বন্ধ থাকবে।

জনসমাবেশ হয় এ ধরনের সামাজিক,রাজনৈতিক ও ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান বন্ধ থাকবে। বিধিনিষেধ চলাকালে এসময় সরকারি কর্মচারীদের নিজ নিজ কর্মস্থলে অবস্থান করতে বলা হয়েছে। সেসময় দাফতরিক কাজগুলো ই-টেন্ডারিং,ই-মেইল,এসএমএস,হোয়াটসঅ্যাপ-এর মতো মাধ্যমগুলো ব্যবহার করে সম্পন্ন করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

জরুরী পণ্য পরিবহনে নিয়োজিত ট্রাক,লরি, কাভার্ডভ্যান,পণ্যবাহী যান নিষেধাজ্ঞার আওতা বহির্ভূত থাকবে।

কাচা বাজার, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রয়-বিক্রয় করা যাবে। অতি প্রয়োজন ছাড়া কোনভাবেই বাড়ির বাইরে বের হওয়া যাবে না। নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য,পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপন,জনসাধারণের যাতায়াত,ঈদ-পূর্ববর্তী ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনা,দেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থা এবং অর্থনৈতিক কার্যক্রম স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে সরকার গত ১৪ জুলাই মধ্যরাত থেকে ২৩ জুলাই সকাল ৬ টা পর্যন্ত বিধিনিষেধ শিথিল করে।

পোস্টটি শেয়ার করুন
Share

Leave a Reply

x

Check Also

মতলব উত্তরে যুবলীগের জাতীয় শোক দিবসে আলোচনা সভা ও দোয়া

মতলব উত্তর প্রতিনিধি : চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের উদ্যোগে যথাযোগ্য ...